টিউশন ফি’র ওপর করারোপ স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ এবং বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি এর ওপর ৭ দশমিক ৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপের সিদ্ধান্ত স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।

বুধবার (১৯ আগস্ট) আদালতে আবেদনটি দায়ের করেন ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী আজিজুর রহমান খান, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির বিবিএ’র শিক্ষার্থী এখলাসুর রহমান, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস টেকনলোজি’র বিবিএ’র শিক্ষার্থী রেজাউল ইসলাম খানসহ চার শিক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি জে এন দেব চৌধুরীর বেঞ্চে শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।

আবেদনের পক্ষে ‍শুনানিতে অংশ নেবেন ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা।

এর আগে গত ৯ আগস্ট বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ এবং বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি এর ওপর  ৭ দশমিক ৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট।

ওই আবেদনের বাদী ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষক খন্দকার দিদার-উস-সালাম, একই ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের ছাত্র আরিফ মাহমুদ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র ফরহাদ হোসেন।

তাদের আইনজীবী খন্দকার দিদার-উস-সালাম জানান, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ এবং বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি এর ওপর  ৭ দশমিক ৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করে গত ৪ জুলাই এনবিআর প্রজ্ঞাপন জারি করে। এ প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করলে আদালত রুল জারি করেন।

তিন সপ্তাহের মধ্যে অর্থ সচিব, শিক্ষা সচিব, এনবিআর সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

রিট আবেদনে বলা হয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর করারোপ করা হলেও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর করারোপ করা হয়নি। এটা বৈষম্যমূলক।
ল’ইয়ার্সক্লাববাংলাদেশ.কম

You may also like...

error: Content is protected !!