বিদেশ থেকে আগমণকালে একজন যাত্রি কী পরিমাণ স্বর্ণ আনতে পারবেন?

সম্মানিত প্রবাসীগণের অনেকের প্রশ্নের প্রেক্ষিতে আমরা সংশ্লিষ্ট নীতিমালা পর্যালোচনা করে এবং শুল্ক কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনাক্রমে  প্রশ্নের ব্যাখ্যাসহ উত্তর দেয়ার চেষ্টা করছি…

যাত্রি কী পরিমাণ স্বর্ণ আনতে পারবেন

ক) স্বর্ণালংকারঃ শুল্ক-কর ব্যতীত সর্বোচ্চ ১০০ গ্রাম। তবে এক প্রকারের অলংকার ১২টির বেশি হতে পারবে না। ১০০ গ্রামের অতিরিক্ত আরও ১০০ গ্রাম পর্যন্ত অলংকার HS-Code (২০১৪-১৫) অনুযায়ী গ্রাম প্রতি ১৫০০/- টাকা হারে শুল্ক-কর পরিশোধ সাপেক্ষে আনা যাবে।

ব্যাখ্যাঃ ১০০ গ্রামের অতিরিক্ত পরিমাণ অলংকার সঙ্গে থাকলে বিমানে সরবরাহকৃত “ব্যাগেজ ঘোষণা ফরম” এ সংশ্লিষ্ট কলামে অবশ্যই “হা”-তে টিক দিতে হবে। কোনভাবে এই ঘোষণায় ব্যর্থ হলে কাস্টম চেকিং এর সময় নিজ থেকে তা কর্তৃপক্ষের কাছে মৌখিকভাবে ঘোষণা করতে হবে।

ঘোষণা না করলে গোপন করার দায়ে কিংবা ঘোষণা দিয়ে ১০০+১০০=২০০ গ্রামের অতিরিক্ত পরিমাণ অলংকার আনলে সম্পূর্ণ স্বর্ণালংকারই জব্দ করে আপনাকে ডিএম (ডিটেনশন মেমো) দেয়া হবে। এই ডিএম নিয়ে ২১ দিনের মধ্যে কাস্টম হাউজে সিএন্ডএফ এজেন্টের মাধ্যমে নির্ধারিত ট্রাইবুনালে যেতে হবে এবং শুনানি শেষে ট্রাইবুনাল কর্তৃক নির্ধারিত শুল্ক-কর/জরিমানা দিয়ে তা ছাড়িয়ে আনতে হবে।

প্রতি অর্থ বছরে HS-Code-এ শুল্ক-কর পূননির্ধারিত হয়ে থাকে।

খ) স্বর্ণবার বা স্বর্ণপিন্ডঃ শুল্ক-কর পরিশোধ সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ২০০ গ্রাম। প্রতি ১১.৬৬৪ গ্রামে ৩০০০/- টাকা শুল্ক-কর পরিশোধ করতে হবে।

ব্যাখ্যাঃ অবশ্যই ঘোষণা করতে হবে। গোপন করলে কিংবা বার/পিন্ডের মোট পরিমাণ ২০০ গ্রামের উপরে হলে উপরে বর্ণিত নিয়ম প্রযোজ্য হবে। তবে এই ক্ষেত্রে সাধারণত ২৩৪ গ্রাম পর্যন্ত ডিএম নিয়মের সুযোগ দেয়া হয়। এর অতিরিক্ত হলে স্মাগলিং এর দায়ে মামলা হতে পারে।

মধ্যপ্রাচ্যে দুই ধরণের স্বর্ণবার পাওয়া যায়- ১০০ ও ১১৭ গ্রাম প্রতিটি। একাধিক (দু’টি) স্বর্ণবার ক্রয়ের ক্ষেত্রে ঝামেলা এড়াতে ১০০ গ্রাম ওজনের স্বর্ণবার কেনা উচিত।

‪#‎স্বর্ণালংকার‬ এবং ‪#‎স্বর্ণবার‬/পিন্ডের হিসেব সম্পূর্ণরূপে আলাদা। উদাহরণ স্বরূপ…আপনি ইচ্ছে করলে ১০০ গ্রাম শুল্কমুক্ত অলংকার এবং ২০০ গ্রাম শুল্কযুক্ত বার/পিন্ডসহ মোট ৩০০ গ্রাম স্বর্ণ আনতে পারেন।

সম্পূরক তথ্য:

ভরি ও গ্রামের মধ্যের সম্পর্ক নিম্নরূপ:

ভরির একক হিসেবে প্রাচীনকালে ১ টাকার সমপরিমাণ বা আঞ্চলিক ভাষায় কাঁচা পয়সাকে ভরির একক হিসেবে মূল্যায়িত করা হতো। ভরির ক্ষুদ্রতম একক রতি। ৬ রতি সমওজনে ১ আনা এবং ১৬ আনায় ১ ভরি হয়। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ১ ভরি = ১১.৬৬ গ্রাম (প্রায়)।

৮ আনা = ৫.৮৩২ গ্রাম
১৪ আনা = ১০.২০৬ গ্রাম
১ ভরি = ১১.৬৬৪ গ্রাম

magistrates.airports.bd@gmail.com'

Magistrates, All Airports of Bangladesh

We dare to chase, whoever the big shot, care very less. Let us know how you gonna be exploited. Extend your hands and kick the criminals out. https://www.facebook.com/magistrates.all.airports.bangladesh

You may also like...

error: Content is protected !!